র‍্যাঙ্কিংয়ের হিসেব নিকেশও মাথায় রাখছে বাংলাদেশ

0
180

গত জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে বড় সুযোগ ছিল বাংলাদেশের। সিরিজ ড্র করলেই ক্যারিবিয়ানদের ছাপিয়ে উঠে যেত টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ের আটে। কিন্তু দুই টেস্টেই বিধ্বস্ত হয়ে বাংলাদেশ পিছিয়ে পড়ে আরও। এবার জিম্বাবুয়ের সঙ্গে ঘরের মাঠে সিরিজ ড্র করেও বাংলাদেশ হারিয়েছে ৬ রেটিং পয়েন্ট। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে এবার হোয়াইটওয়াশ করলেও তাই এগিয়ে যেতে পারছেন না সাকিব আল হাসানের দল। তবে নিশ্চিতভাবেই সুযোগ থাকছে ব্যবধান কমানোর।

২০ নভেম্বর হালনাগাদ হওয়া আইসিসির সর্বশেষ র‍্যাঙ্কিং অনুযায়ী ৭৬ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ আছে আট নম্বরে। ৬১ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান নয়। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে এবার ২-০ তে হারালে বাংলাদেশের পয়েন্ট দাঁড়াবে ৭১.৯৬ আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৭৬ থেকে কমে আসবে ৭২.৪৪ পয়েন্টে। অর্থাৎ তখনো অপরিবর্তিত থাকবে দুদলের অবস্থান। আর বাংলাদেশ সিরিজ হারলে বা ড্র কথাই নেই, ভালোভাবেই এগিয়ে থাকবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

অতো হিসেব নিকেশে না গিয়েও র‍্যাঙ্কিং বেশ গুরুত্বপূর্ণ বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিবের কাছে,  ‘ভালো করার  বিশ্বাস সবার ভেতরে আছে। আর যেহেতু দুই দলের র‍্যাঙ্কিংটা কাছাকাছি, আমরা আট-নয়ে অবস্থান করছি। আমি মনে করি এই সিরিজটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমি আত্মবিশ্বাসী যে আমরা ভালো করবো।’

আত্মবিশ্বাস ভরপুর কিন্তু কাজটা যে সহজ নয় জানেন সাকিব। জিম্বাবুয়ে থেকে অনেকখানি এগিয়ে থেকেও সিরিজ জিততে পারেনি বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ে থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ যে অনেক এগিয়ে আর চ্যালেঞ্জটাও যে বেশি মানছেন অধিনায়ক, ‘হ্যাঁ অবশ্যই একটু বেশি চ্যালেঞ্জিং। যদিও আমরা জিম্বাবুয়ের সাথে প্রথম টেস্টে খুব ভালো করি নি। উউইন্ডীজদের সাথে এর থেকে বেশি চ্যালেঞ্জিং হবে, এইটুক আমি শতভাগ নিশ্চিত। সেটা বোলিং ব্যাটিং মেন্টার দিক থেকেই হোক, তিনটা দিকেই মনে হয় অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং হবে। তবে আমরা এমন চ্যালেঞ্জ নিতে অভ্যস্ত এটাও আমি মনে করি।’

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে নয়টায় চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হবে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here