নৌকার মহড়া, ধানের শীষ ঘরবন্দী

0
216
ঢাকা–১৪ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আসলামুল হকের সমর্থকেরা বিএনপির প্রার্থী আবু বকর সিদ্দিকের বাড়ির দিকে যেতে চাইলে বাধা দেয় পুলিশ। গতকালের ছবি।  প্রথম আলো

বেলা আড়াইটা। ঢাকা–১৪ আসনে ধানের শীষের প্রার্থী সৈয়দ আবু বকর সিদ্দিকের বাসভবনে জড়ো হয়েছেন কয়েক শ কর্মী-সমর্থক। দারুস সালামের সড়ক ঘেঁষা বাড়িটি থেকে ভেসে আসছিল ধানের শীষের স্লোগান। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সমর্থকদের ভিড় বাড়ির প্রধান ফটক ছাড়িয়ে মিরপুর সড়কের কাছে এসে ঠেকে। মাইকে ঘোষণা দেওয়া হচ্ছে, কিছুক্ষণের মধ্যে আনুষ্ঠানিক প্রচারণায় নামবেন প্রার্থী।

কিন্তু হঠাৎ করেই ওই আসনে নৌকার প্রার্থী আসলামুল হকের সমর্থনে একটি বিরাট মিছিল হাজির হয় সৈয়দ আবু বকর সিদ্দিকের বাড়ির সামনে। এতে বদলে যায় দৃশ্যপট। নৌকা ও ধানের শীষের পাল্টাপাল্টি স্লোগানে ছড়ায় উত্তেজনা। সংঘাতের আশঙ্কায় সাধারণ মানুষ দিগ্‌বিদিক ছুটতে থাকে।

গতকাল সোমবার দারুস সালামে ধানের শীষের প্রার্থীর প্রচারণা শুরুর আগে এ চিত্র দেখা গেছে।

দেখা যায়, একপর্যায়ে আসলামুল হকের সমর্থকেরা মিছিল নিয়ে এস এ খালেক আবাসিক এলাকার ভেতরে প্রবেশ করেন। এ সময় নৌকার সমর্থকেরা সড়কে টাঙানো ধানের শীষের প্রার্থীর পোস্টার ছিঁড়ে ফেলেন। মিছিলটি আবাসিক এলাকা ঘুরে আবার দারুস সালাম টাওয়ার ঘেঁষে মিরপুর সড়কের একাংশে অবস্থান নেয়। আর মিরপুর সড়কের খালেক ফিলিং স্টেশন ঘেঁষা আবু বকর সিদ্দিকের বাড়ির সামনে অবস্থান নেন ধানের শীষের সমর্থকেরা। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ছিলেন সতর্ক অবস্থানে। দুই দলের সমর্থকদের মধ্যবর্তী জায়গা দারুস সালাম টাওয়ারের সামনের সড়ক ঘেঁষে অবস্থান নেন তাঁরা। এ সময় ধানের শীষের সমর্থকেরা পথচারী ও সড়কে চলাচলরত গাড়িতে প্রচারপত্র বিতরণ করতে থাকেন। বেলা সাড়ে তিনটার দিকে টেকনিক্যাল মোড় থেকে নৌকার সমর্থনে আরও দুটি বড় মিছিল আবু বকর সিদ্দিকের বাড়ির সামনে এলে ধানের শীষের সমর্থকেরা প্রধান সড়ক ছেড়ে প্রার্থীর বাড়ির সামনে অবস্থান নেন।ধানের শীষের প্রার্থীর বাড়ির সামনে নৌকার সমর্থকদের মহড়া। এতে তিনি গতকাল প্রচারণা চালাতে পারেননি।

এ সময় কথা হয় কল্যাণপুরে বিএনপির কর্মী জাকির হোসেনের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘দেখতেই পাচ্ছেন কী হচ্ছে। আমরা রাস্তায় নামলেই ওরা হামলা করবে। পুলিশের সামনে আমাদের পোস্টার ছেঁড়া হলো। ওনারা দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে দেখলেন। সুষ্ঠু নির্বাচন হওয়ার কোনো পরিবেশ নেই।’

বিকেল চারটার দিকে দুটি গাড়িতে আসা বিজিবির সদস্যরা দারুস সালাম টাওয়ারের সামনে অবস্থান নেন। এ সময় অল্প কিছু সময়ের জন্য প্রার্থী আবু বকর সিদ্দিক বাড়ির প্রধান ফটকে এসে দাঁড়ান। কর্মী–সমর্থকদের সংযত থাকার কথা বলে আবার বাড়ির ভেতরে চলে যান। বিকেল সোয়া চারটার দিকে আবু বকর সিদ্দিকের বাবা ওই আসনের সাবেক সাংসদ এস এ খালেকের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন আসলামুল হকের সমর্থকেরা। এ সময় তাঁরা আবু বকর সিদ্দিকের বাড়ির দিকে যেতে চাইলে পুলিশ ও বিজিবির সদস্যরা বাধা দেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করছি। যেকোনো ধরনের সংঘাত এড়াতে আমরা দুই দলের মাঝামাঝি জায়গায় অবস্থান নিয়েছি।’

বিকেল সাড়ে চারটায় বাসার ভেতরে সংবাদকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন আবু বকর সিদ্দিক। তিনি বলেন, ‘আমরা পথে নামলেই ওরা হামলা করবে। নির্বাচন কমিশন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আমাদের নিরাপত্তা দিতে পারছে না। সংঘাত এড়াতেই আমরা আজ প্রচারণায় নামছি না। প্রশাসন নিরাপত্তার ব্যাপারে আশ্বস্ত করলেই আমরা প্রচারণা শুরু করব। তবে কেউ ভাববেন না আমরা ভয় পেয়ে ঘরে ঢুকেছি। ৩০ তারিখে জনগণ ব্যালটের মাধ্যমে এই অন্যায়ের জবাব দেবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here