দেশের ক্রিকেট সংস্কৃতির কারণেই পরীক্ষা নিরীক্ষায় ‘বাধা’

0
284

বিশ্বকাপ সামনে রেখে কম্বিনেশন ঠিক করার খুব বেশি সময় নেই বাংলাদেশের সামনে। ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে সিরিজ দিচ্ছে সে সুযোগ। সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল নেই। এমনিতেই গুরুত্বপূর্ণ দুই জায়গা বাজিয়ে দেখতেই হবে। তবে দেশের ক্রিকেট সংস্কৃতির কারণেই এর বেশি পরীক্ষা নিরীক্ষার সুযোগ দেখছেন না অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজা।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ জিততে হবে বটে তবে তারচেয়ে বিশ্বকাপের কম্বিনেশন ঠিক করে নেওয়াটা বেশি জরুরী। ঠাসা সূচির কারণে বড়দলগুলোকে দেখা যায় এমনটা করতে। এশিয়া কাপেই দেখা গেল ভারতের নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলি খেলেননি, নিদহাস কাপেও খেলেননি তাদের একাধিক ক্রিকেটার। বাংলাদেশও কি পারে না তুলনামূলক ‘সহজ’ সিরিজে তরুণ দু’চারজনকে বাজিয়ে দেখতে?  এই জায়গায় মাশরাফির ভয় দেখের ক্রিকেট সংস্কৃতিতে। হয়ত খেলিয়ে দিলেন এক ঝাঁক তরুণকে। কিন্তু ফল যদি খারাপ হয় তখন তো লোকে তেড়ে আসবে, ‘হয়তো আমি নতুন চারটা খেলোয়াড় খেলিয়ে দিলাম। আচ্ছা ঠিক আছে আমরা হারি জিতি সেটা দেখতে চাই। আমাদের সংস্কৃতিতে এটা সবাই কিভাবে নেবে ম্যাটার করে। কারণ হারটা আমরা খুব সহজে নিতে পারি না। এটা দল নির্বাচনের সময় চিন্তায় থাকে।’

অন্যদের সঙ্গে এই জায়গায় নিজেদের তফাৎ আছে স্বীকার করে নিলেন ওয়ানডে অধিনায়ক,  ‘হয়তো বা অন্য জায়গায় যেটা হয় ওরা যাকে নেয় ব্যাকআপ করে যাচ্ছে। দেখতে চাই। হারি জিতি যাই হোক না কেন। আমাদের ক্ষেত্রে কিছুটা জড়তা থাকে। থাকে না, অস্বীকার করার সুযোগ নেই। তবে আমার মনে হয় সংস্কৃতি একটু একটু করে বদলাচ্ছে।’

গৎবাঁধা ক্রিকেট সংস্কৃতিও তো বদলায়। আগামীর কথা চিন্তা করে বর্তমানের খরচ কুলিয়ে নেওয়ার তাগদও তৈরি হয়। অধিনায়ক আশা দেখছেন এই সিরিজে সুযোগ পাওয়া তরুণরা শুরুতে ব্যর্থ হলেও তাদের সমর্থন করবেন সবাই,  ‘আমি আশা করি যাকে দেখতে চাই তাকে আপনারাও সুযোগ দেবেন আমরাও সুযোগ দেব এবং সাধারণ মানুষ যেন তাদের সুযোগ দেয় যে সে ঘরোয়া ক্রিকেটে যেটা করেছে সেটা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এতটা সহজে হয় না। দেখেন ফজলে রাব্বি কতগুলো রান করেছে গতকাল কিছুটা হলেও নার্ভাসনেস ছিলো। তো ওকে সেট করতে হলে কিছুটা সময় দিতে হবে। সবাইকে এক্ষেত্রে আন্তরিক হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here