জনপ্রিয়তায় শীর্ষে পঞ্চগড়ের প্রথম নারী প্রার্থী তাসমিয়া

0
326
জনপ্রিয়তায় শীর্ষে পঞ্চগড়ের প্রথম নারী প্রার্থী তাসমিয়া

পঞ্চগড়ের ইতিহাসে প্রথম নারী সংসদ সদস্য প্রার্থী ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রথমবারের মতো এই নারী জাতীয় গণতান্ত্রিক দল জাগপার প্রার্থী হিসেবে হুক্কা প্রতীকে পঞ্চগড় ২ আসনে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে এলাকায় বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছেন এই নারী প্রার্থী।

জাগপার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শফিউল আলম প্রধানের মেয়ে ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান। তারা দাদা গমির উদ্দিন প্রধান ছিলেন পাকিস্তানের প্রাদেশিক পরিষদের স্পিকার। শফিউল আলম প্রধান মারা যাওয়ায় বর্তমান দলটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। বিএনপির অন্যতম শরীক দল হলেও জাগপাকে এবার একটি আসনও দেওয়া হয়নি। শেষ পর্যন্ত একটি আসন হলেও জাগপা থেকে পঞ্চগড় ২ আসনটি দাবি করে আসছিলো তারা। কিন্তু পঞ্চগড়ের দুটি আসনেই বিএনপি তাদের নিজস্ব প্রার্থী দেয়। নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষায় মাঠে নামতে হয় তাসমিয়া প্রধানকে। পঞ্চগড়ের দুটি আসনেই শফিউল আলম প্রধানের দুই সন্তান নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। পঞ্চগড় ২ আসনে শফিউল আলম প্রধানের মেয়ে তাসমিয়া প্রধান ও পঞ্চগড় ১ আসনে জাগপার ছেলে আল রাশেদ প্রধান হুক্কা প্রতীকে নির্বাচন করছেন।

শফিউল আলম প্রধানের জন্মস্থান পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলার টোকরাভাসা এলাকায়। তাই পঞ্চগড়ে জাগপার ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে।

বাংলাদেশের জন্ম হওয়ার আগে ও পরে পঞ্চগড়ে নারী কোনো প্রার্থী নির্বাচন করেছে বলে জানা যায় না। তাসমিয়া প্রধানই একমাত্র নারী যিনি পঞ্চগড়ের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। শুধু তাই নয় দেবীগঞ্জ উপজেলার একমাত্র প্রার্থী হিসেবে তার প্রতি দেবীগঞ্জের মানুষের আলাদা একটা টান রয়েছে।

পঞ্চগড় দুটি আসনে ৮ টি দলের মোট ১৪ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তার মধ্যে একমাত্র নারী প্রার্থী তাসমিয়া। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সাথে টেক্কা দিয়ে হুক্কা নিয়ে এগিয়ে চলেছেন এই নারী। বর্তমানে পঞ্চগড় ২ আসনের বোদা ও দেবীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ, মিছিল, মিটিং, পথসভা ও উঠোন বৈঠক করে ব্যস্ত সময় পাড় করছেন তিনি। একমাত্র নারী প্রার্থী হওয়ায় ভোটারদের মাঝে তাকে নিয়ে আগ্রহ বেড়েছে।

দেবীগঞ্জের ভোটার জেসমিন খাতুন জানান, এই প্রথম একজন নারী প্রার্থী দেখছি। ভোটের মাঠে নারীদের আসার এই সাহস আমাদের অনুপ্রেরণা জোগাবে। এ ছাড়া তিনি সব দিক দিয়েই একজন যোগ্য প্রার্থী। তাই আশা করি তিনি জয়ী হলে ভাল কিছু করতে পারবেন।

জেলা জাগপা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল হোসেন জানান, আমরা যেখানেই যাচ্ছি সবাই আমাদের ডাকে সারা দিচ্ছে। মরহুম শফিউল আলম প্রধানের এখানে ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে। এ ছাড়া তাসমিয়া প্রধান নিজেদের মেয়ে হওয়ায় আশা করছি সবাই হুক্কা প্রতীকে এবার ভোট দিয়ে তাকে জয়যুক্ত করবে।

পঞ্চগড় ২ আসনে জাগপার প্রার্থী ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান জানান, এই এলাকায় বড় দাগে যেসব ভারি শিল্প প্রতিষ্ঠান আছে তা আমার দাদা মরহুম গমির উদ্দিন প্রধান করেছেন। আমার বাবা সারা জীবন সাধারণ মানুষের জন্য সংগ্রাম করেছেন। এখানে আমাদের নিজস্ব ভোট ব্যাংক রয়েছে। এ ছাড়া বিএনপির শক্তিশালী প্রার্থী দিতে পারেনি। অন্যান্য দলের মধ্যেও কোন্দল রয়েছে। এখানে আমিই প্রথম পঞ্চগড়ের নারী সংসদ সদস্য প্রার্থী। আমরা যেভাবে সাড়া পাচ্ছি আশা করি হুক্কা প্রতীক নিয়ে আমরা এই জয়ী হতে পারবো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here