‘আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল কখনোই প্রীতি ম্যাচ হয় না’

0
265

প্রীতি ম্যাচে মঙ্গলবার ব্রাজিলের মোকাবেলা করবে আর্জেন্টিনা। সৌদি আরবের জেদ্দায় ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হওয়ার আগে এ তুমুল উত্তেজনা। প্রীতি ম্যাচ নিয়ে এতো আলোচনা, আবেগ, উত্তেজনা খুব কমই হয়। আর এর কারণ হলো দুই দল যে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী। এ দুই দলের ম্যাচ যে কখনোই প্রীতি ম্যাচ হয় না তা মনে করিয়ে দিলেন আর্জেন্টিনার স্ট্রাইকার মাউরো ইকার্দি।

‘আর্জেন্টিনা-ব্রাজিলের মধ্যে কখনো প্রীতি ম্যাচ হয় না। এই ম্যাচ ঘিরে থাকে অনেক আবেগ। শেষ সফরে আমরা কলম্বিয়ার বিপক্ষে খেলেছি, ওরাও দুর্দান্ত দল। কিন্তু ব্রাজিল অন্য কিছু, তাদের বিপক্ষে খেলা মানে আরও বেশি কিছু। এ কারণে ওদের বিপক্ষে মাঠে কখনোই প্রীতি ম্যাচ হয় না। আর এটা কখনো হবেও না।’ – ব্রাজিলের বিপক্ষের ম্যাচ নিয়ে এমনটাই বলেছেন ইকার্দি।

দুদিন আগেই ইরাকের বিপক্ষে ৪-০ গোলের জয় পেয়েছে আর্জেন্টিনা। আগের দিন সৌদি আরবের বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় পায় প্রতিপক্ষ ব্রাজিলও। নিজেদের শেষ ম্যাচে তুলনামূলক বড় জয় পেলেও এ ম্যাচে আর্জেন্টিনা নিজেদের ফেভারিট ভাবতে পারছে না। তেমন গোছানো ফুটবল খেলতে পারেনি দলটি। তার কারণটা অবশ্য তুলে ধরেছেন ইকার্দি, ‘আমরা অনেক নতুন খেলোয়াড় নিয়ে নতুন একটা প্রকল্প অনুসরণ করার চেষ্টা করছি। অনেকেই প্রথমবারের মতো আর্জেন্টিনার জার্সি পড়েছে। সবাই মিলে ভবিষ্যৎ নির্মাণের চেষ্টা করছি, একটা ভিত্তি তৈরির চেষ্টা করছি। যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

রাশিয়া বিশ্বকাপে হোর্হে সাম্পাওলির দলে ছিলেন না ইকার্দি। বিশ্বকাপ শেষে অন্তর্বর্তীকালীন কোচ লিওনেল স্কোলানির দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য তিনি। খেলছেনও দারুণ। সাম্প্রতিক ফর্ম নিয়ে বললেন, ‘আমি খুব ভালো আছি। বর্তমানে ভালো ছন্দে আছি। দলের সঙ্গে অনুশীলন করতে পারছি। যেটা আগের বার ডাক পাওয়ার সময় হয়নি।’

মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায় জেদ্দার কিং আব্দুল্লাহ স্পোর্টস সিটিতে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি। এ নিয়ে ১০৪ বার মুখোমুখি হচ্ছে দুই দল।তাতে ৪০টি ম্যাচ জিতেছে ব্রাজিল। অপরদিকে আর্জেন্টিনায় জয় ৩৮টি ম্যাচে। তবে সর্বশেষ মোকাবেলায় অবশ্য জিতেছিল আর্জেন্টিনাই। সাম্পাওলির অভিষেক ম্যাচে আর্জেন্টিনা জিতেছিল ১-০ গোলের ব্যবধানে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here