বিশ্রামের কথা ভাবছেন না সিনিয়ররা

0
285

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম দুই ম্যাচ জিতেই সিরিজ জেতা হয়ে যাবে, শেষ ম্যাচে তাই বাজিয়ে দেখা যাবে বেঞ্চ। এমন ভাবনা থেকেই দ্বিতীয় ওয়ানডের মাঝপথে ডাকা হয় সৌম্য সরকারকে। কিন্তু অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজার কথায় আভাস, শেষ ম্যাচে কোন সিনিয়রই বিশ্রামের কথা ভাবছেন না।

বিশ্বকাপে ওপেনিং ভাবনায় প্রথম পছন্দ তো তামিম ইকবাল আছেনই। তার সঙ্গী হওয়ার দৌড়ে লড়াই চলছে লিটন দাস ও ইমরুল কায়েসের মধ্যে। তাদের বিশ্রাম দিয়ে ছন্দ নষ্ট করতে চায় না দল।

বিশ্রাম পেতে পারতেন মুশফিকুর রহিম। কিন্তু সব সময় খেলার জন্য মুখিয়ে থাকা এই ক্রিকেটার নিজেই অনুরোধ করছেন ফিট থাকলে তাকে কখনো বিশ্রাম না দিতে। বিশ্রাম চাইছেন না মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও। টেস্ট সিরিজে তিনিই অধিনায়কত্ব করবেন। ওয়ানডে সিরিজে প্রথম ম্যাচে শূন্য রানে আউট হয়েছে, পরের ম্যাচে ব্যাট করারই সুযোগ মেলেনি। তাই ব্যাটিং অনুশীলনের জন্য হলেও তার খেলাটা দরকার।

অধিনায়ক বিশ্রামের কথা ভাবছেন না মোহাম্মদ মিঠুনের বেলাতেও। পাঁচ নম্বরে অন্য কাউকে তার ব্যাকআপ ভাবা হয়নি। তাই গুরুত্বহীন ম্যাচ হলেও ছন্দে ধরে রাখতে প্রথম পছন্দের সবাইকে খেলাতে চান অধিনায়ক, ‘আসলে এত পরিবর্তন করার সুযোগ নেই। আমি মনে করি  ছয় পর্যন্ত সবাই আমাদের বিশ্বকাপ পর্যন্ত সুস্থ থাকে তাহলে তেমন পরিবর্তন হওয়ার সুযোগ কিন্তু কম। আমার কাছে মনে হয় যেহেতু বিশ্বকাপের আগে তেমন বেশি ম্যাচ নেই, তাই যাদেরকেই চিন্তা করা হয় তারা যদি ফর্মে নাও থাকে এরপরেও তাদেরকে খেলিয়ে, আরও ভালভাবে প্রস্তুত করাটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’

অধিনায়কের অল্প বিস্তর চোট সমস্যা আছে। কিন্তু কম ম্যাচ খেলেন বলে তিনি কোন বিশ্রাম নিতে চাইছেন না, ‘দেখুন আমি তো একটি ফরম্যাটে খেলি। সুতরাং যেভাবেই হোক সবসময় খেলতে চাই। অন্যদের মত না যারা টেস্ট খেলে, কিংবা টি টুয়েন্টি খেলে। অথবা ঘরোয়া লীগে চার দিনের ম্যাচ খেলে। আমার জন্য তো সেটা না। আমি তো একটি ফরম্যাট খেলি। তো এখানেও যদি বিশ্রাম নেই তাহলে বেশ কঠিন হয়ে যায় নিজেকে সেট করা।’

তবে একেবারেই যে অপরিবর্তিত একাদশ নিয়ে নামবে দল তাও না। সাত নম্বর মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন দুই ম্যাচে নিজেকে কিছুটা প্রমাণ করেছেন। তার জায়গায় সুযোগ মিলতে পারে আরিফুল হক বা সৌম্য সরকারের। অথবা তিন নম্বরে রান না পাওয়া ফজলে মাহমুদ রাব্বির নাম কাটা যেতে পারে। দলের ভাবনায় আছে একজন অতিরিক্ত বোলার খেলানো। সেক্ষেত্রে সুযোগটা মিলতে পারে আবু হায়দার রনি, ‘হয়তো সাত নম্বরে পরিবর্তন আনা যাবে, অথবা একজন অতিরিক্ত বোলার খেলানো যায়। সৌম্য হয়ত কালকে দলের সাথে যোগ দিয়েছে। তবে তাঁর ক্ষেত্রে কি হবে সেটি এখনও জানি না। তবে এখন দুই একটি খেলোয়াড়কে দেখা যেতে পারে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here