কে টেনে নামালো নতুন উড়োজাহাজটিকে?

0
268

ইন্দোনেশিয়ার লায়ন এয়ারের একটি নতুন বোয়িং প্লেন গতকাল (২৯ অক্টোবর) ১৮৯ যাত্রী ও ক্রু নিয়ে জাকার্তা বিমানবন্দর থেকে উড়াল দেওয়ার ১৩ মিনিট পরই তা সাগরে গিয়ে পড়ে। কিন্তু, কেনো এমনটি হলো তা এখনো রহস্যে মোড়া। ব্লাকবক্সের তথ্য এখনো উদ্ধার করা যায়নি। এমন অবস্থায় প্রশ্ন জেগেছে- কে টেনে নামালো নতুন এই উড়োজাহাজটিকে?

দেশটির জাতীয় পরিবহন নিরাপত্তা কমিটি আজ (৩০ অক্টোবর) জানায়, বোয়িং ৭৩৭ এমএএক্স৮ উড়োজাহাজটি গত আগস্ট মাসে কেনা হয়। এটি উড়েছে মাত্র ৮০০ ঘণ্টা। এটি নতুন ও উন্নত প্রযুক্তিসমৃদ্ধ।

এই দুর্ঘটনার পর দুঃখ প্রকাশ করেছে বোয়িং কোম্পানি। বলেছে, “মাত্র ৮০০ ঘণ্টা উড়ার পর উড়োজাহাজটিকে এমন পরিস্থিতির মুখে পড়তে হবে- তা ভাবতেও পারছি না।”

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন-এর অ্যাভিয়েশন বিশ্লেষক ও যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় পরিবহন নিরাপত্তা বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান পিটার জোয়েলজ বলেন, এমন একটি নতুন উড়োজাহাজের কপালে এমন কিছু জুটবে তা “খুবই অপ্রত্যাশিত”।

এছাড়াও, উড়োজাহাজটির পাইলট এবং কো-পাইলটের রয়েছে যথাক্রমে ছয় হাজার ও পাঁচ হাজার ফ্লাইট ঘণ্টার অভিজ্ঞতা। সে সময়ের আবহাওয়াকেও দায়ী করা যাচ্ছে না। তাই উড়োজাহাজটির দিকেই তদন্তকারীদের নজর দিতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

উড়োজাহাজের ‘বেখেয়ালি’ আচরণ

দুর্ঘটনায় পড়ার একদিন আগে উড়োজাহাজটি ‘বেখেয়ালি’ আচরণ করেছিলো বলে খবরে প্রকাশ। এর চলার গতি যেমন বেড়ে গিয়েছিলো তেমনি এটি উঠে গিয়েছিলো অস্বাভাবিক উচ্চতায়।

অ্যাভিয়েশনবিষয়ক ওয়েবসাইট ফ্লাইটরাডার২৪-এর বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স আজ জানায়, লায়ন এয়ারের প্রধান নির্বাহী বলেছেন, এটা ঠিক যে ফ্লাইট চলাকালে উড়োজাহাজটির ‘যান্ত্রিক ক্রুটি’ দেখা দিয়েছিলো। এছাড়াও, জেলেরা জানিয়েছেন সাগরে পড়ার আগে উড়োজাহাজের নাক কিছুটা নিচের দিকে নামানো ছিলো।

গত ২৮ অক্টোবর বালি থেকে উড়াল দেওয়ার সময় উড়োজাহাজটি ‘অস্বাভাবিক’ উচ্চতায় উঠে গিয়েছিলো বলে সেই খবরে উল্লেখ করা হয়। সেসময় এর গতিও বেড়ে গিয়েছিলো অনেক। এমনকি, মাত্র ২৭ সেকেন্ডে ৮৭৫ ফুট নিচে নেমে গিয়েছিলো এটি।

যাহোক, পাইলটরা সাধারণত জাকার্তা-দেনপাসার পথে উড়োজাহাজটি ৩৬ হাজার ফুট উচ্চতায় রাখলেও সে সময় তারা রেখেছিলেন ২৮ হাজার ফুট উপরে।

লায়ন এয়ারের প্রধান নির্বাহী এডওয়ার্ড সিরাইত গতকাল বলেছিলেন, উড়োজাহাজটিতে যান্ত্রিক ক্রুটি দেখা দিয়েছিলো ঠিকই, তবে তা “নিয়ম মেনেই” সারিয়ে নেওয়া হয়।

তাহলে কে টেনে নামালো উড়োজাহাজটিকে? – সেই প্রশ্নই এখন ঘুরছে দুর্ঘটনার শিকার ব্যক্তিদের স্বজনদের মনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here